ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ১১ কিলোমিটার হবে ৩৬ ফুট প্রশস্ত

জনতার খবর / ৫৬ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল : বুধবার, ২২ জুন, ২০২২
ছবিঃ সংগহীত

বরিশাল প্রতিনিধিঃ

পদ্মা সেতু চালুর পর যানবাহনের চাপ সামলাতে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের বরিশালের ১১ কিলোমিটার অংশ প্রশস্ত করার কথা জানিয়েছেন বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। নগরীর কালিবাড়ী রোডে নিজ বাসভবনে মঙ্গলবার (২১ জুন) রাতে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।
মহাসড়কের বরিশাল নগরীর গড়িয়াপার থেকে রূপাতলী পর্যন্ত ১১ কিলোমিটার দিয়ে বরিশাল সদর উপজেলা, বাকেরগঞ্জ, ভোলা, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, পটুয়াখালী ও বরগুনার গাড়ি যাতায়াত করবে।

মেয়র বলেন, ‘পদ্মা সেতুর জন্য বরিশাল এখনও প্রস্তুত নয়। ভাঙ্গা থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত যে ছয় লেনের সড়কের কথা বলা হচ্ছে সেটা হতে সময় লাগবে। এই সড়ক হতে হতে আমার নগরীর মধ্যে থাকা ১১ কিলোমিটার মহাসড়কে ব্যাপক চাপ পড়বে। ‘বিষয়টি কীভাবে সমাধান করা যায় সেটা নিয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় সভা করেছি।’

এই ১১ কিলোমিটার সড়ক ২৪ ফুট চওড়া। তবে সড়কের দুই পাশে সড়ক ও জনপথের আরও জায়গা রয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ‘সড়কের দুই পাশ থেকে ছয় ফুট করে মোট ১২ ফুট বাড়ানো সম্ভব। তাহলে এই ১১ কিলোমিটার মহাসড়ক ৩৬ ফুট প্রশস্ত হবে। এতে নগরীতে যানবাহনের চাপ সামাল দেয়া সম্ভব হবে।

‘সড়ক ও জনপথের সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের সঙ্গে আমরা কাজ করতে পারব। আর সড়ক ও জনপথ যদি রাস্তা প্রশস্ত করতে না পারে তাহলে যত দ্রুত সম্ভব সিটি করপোরেশন কাজ শুরু করবে।’
প্রয়োজনে নিজের মায়ের নামে নির্মাণাধীন পার্ক ভেঙে ফেলার কথাও জানান সাদিক আব্দুল্লাহ।
তিনি বলেন, ‘১১ কিলোমিটার মহাসড়কের মধ্যে টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সামনে আমার মায়ের নামে নির্মাণাধীন পার্কও আছে। প্রয়োজন হলে সেটিও ভেঙে ফেলা হবে। জনগণের ভোগান্তি করে আমি কোনো কাজ করব না। সড়কের পাশে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে সেগুলো আমি উচ্ছেদ করব না, নগরবাসী নিজেরাই সরিয়ে নেবে।

‘সাগরদিতে মহাসড়কের জায়গায় একটি মসজিদ ও মন্দির রয়েছে। তাদের সঙ্গে কথা বলব। আমার মনে হয় তারা আমার কথা শুনে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান দুটি সরিয়ে নেবে। মন্দির ও মসজিদ আমি আরও ভালোভাবে নির্মাণ করে দেব। তা ছাড়া ব্যস্ততম মহাসড়কের পাশে ধর্মীয় উপাসনালয় থাকাটাও তো বিপজ্জনক।’

২৫ জুন পদ্মা সেতু চালু হলে বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে চলেছে বরিশালে। যানজট এড়াতে মহাসড়কের পাশে থাকা বরিশাল কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ট্রাক টার্মিনালে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিটি করপোরেশন। সেই সঙ্গে রূপাতলী মিনিবাস টার্মিনাল শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতুর ঢালে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email


এই বিভাগের আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৯৭১,৬০২
সুস্থ
১,৯০৭,২১৯
মৃত্যু
২৯,১৪৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৪১
সুস্থ
১৫২
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট