বিশ্বকাপ ট্রফি চলে এসেছে ঢাকায়

জনতার খবর / ৬৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশকাল : বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
ছবিঃ সংগৃহীত।

খেলা ডেস্কঃ কাতার বিশ্বকাপ উপলক্ষে গত ১২ মে দুবাই থেকে কোকাকোলার আয়োজনে বিশ্বকাপ ট্রফির বের হয় বিশ্ব ভ্রমণের উদ্দেশ্যে। ৫৬টি দেশ ঘোরার পথে ফিফা বিশ্বকাপের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক কোকাকোলার উদ্যোগে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহায়তায় আজ ৮ জুন বুধবার বাংলাদেশে এসেছে ট্রফিটি।

পাকিস্তান থেকে ট্রফিটি একটি বিশেষ বিমানে এসেছে ঢাকায়। ঢাকা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে ট্রফিটি বেলা ১১টায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও ট্রফিটি পৌছায় আরও ২৫ মিনিট পর। ট্রফিটা দেখার জন্য বিমানবন্দরের ভেতরেই আগ্রহ নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন সেখানে দায়িত্বরত বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা, কর্মচারীরা। ট্রফিটা নামতেই করতালির মধ্যে দিয়ে স্বাগত জানান সবাই।

ট্রফিটির সঙ্গে এসেছেন ১৯৯৮ বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্স দলের মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান কারাম্বু ও ফিফার সাত সদস্যের প্রতিনিধি দল। বিশ্বকাপ ট্রফিটি বিমানবন্দরে নামতেই সেটিকে পাশে রেখে ছবি তোলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনসহ ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তারা। এরপর অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা সেরে কারাম্বু একে একে পরিচিত হন বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে।

ট্রফিটি কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায় রাখা হবে রাজধানীর র‌্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে। এর আগে ২০১৩ সালেও বাংলাদেশে এসেছিল বিশ্বকাপ। তবে সেবারের ট্রফিটি ছিল রেপ্লিকা। এবার বাংলাদেশে এসেছে আসল ট্রফি। আজ ট্রফিটি যাবে শুধু বঙ্গভবনে আর গণভবনে। সেখানে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী দেখবেন বিশ্বকাপের ট্রফি। বিশ্বকাপ ট্রফির আগমন উপলক্ষে আজ রাতে আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে হবে নৈশভোজ। বিশ্বকাপ ফুটবলের অনেক দলের জার্সি বানানো হচ্ছে বাংলাদেশে। তাই নির্বাচিত অতিথিদের সঙ্গে কয়েকজন নারী পোশাককর্মী থাকবেন আজকের নৈশভোজে।

তবে আগামীকাল সাধারণ মানুষ বিশ্বকাপ ট্রফি সরাসরি দেখার সুযোগ পাবেন। সকাল সাড়ে দশটা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত আড়াই হাজার নির্বাচিত দর্শক হোটেলে বিশ্বকাপ দেখার সুযোগ পাবেন। তা ছাড়া ছবিও তুলতে পারবেন। এরপর বিকেলে আর্মি স্টেডিয়ামে হবে কনাসার্ট।

সূত্রঃ প্রথম আলো।

Print Friendly, PDF & Email


এই বিভাগের আরো সংবাদ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৯৭১,৬০২
সুস্থ
১,৯০৭,২১৯
মৃত্যু
২৯,১৪৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,২৪১
সুস্থ
১৫২
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট